শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৪ আশ্বিন ১৪২৯

তুলসী চায়ের উপকারিতা-অপকারিতা
ডেল্টা টাইমস্ ডেস্ক:
প্রকাশ: শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২, ৩:১৮ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

তুলসী চায়ের উপকারিতা-অপকারিতা

তুলসী চায়ের উপকারিতা-অপকারিতা

চা পান করতে প্রায় সবাই পছন্দ করেন। চা পানের নানা স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে। আর এই উপকারিতার কথা ভেবে অনেকেরই পছন্দ ভেষজ চা।

বাজারে নানারকম ভেষজ চা পাওয়া যায়। তবে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, বাজারের ভেষজ চায়ের পরিবর্তে বাসাতেই ভেষজ চা বানিয়ে নিলে তা আরো বেশি উপকারি। ভেষজ চায়ের মধ্যে অন্যতম তুলসী চা। আয়ুর্বেদে তুলসীকে ভেষজের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়েছে। বহুবিধ ব্যবহারের জন্য তুলসী পাতাকে বলা হয় ‘ওষধি গাছের রানী’।

মৌসুম পরিবর্তনে অনেকেরই ঠান্ডা জ্বর কিংবা সর্দির মতো সমস্যা প্রায়শই হয়ে থাকে। এ ক্ষেত্রে তুলসী চা খুব দ্রুত সুস্থ হতে সহায়তা করে। এই চা সর্দি-কাশি, ঠান্ডা লাগা থেকে স্বস্তি দেওয়ার পাশাপাশি স্বাস্থ্যের আরো নানা উপকার করে। চলুন জেনে নেওয়া যাক তুলসী চা পানের কিছু চমকপ্রদ স্বাস্থ্য উপকারিতা।

শ্বাসকষ্ট প্রতিরোধে সাহায্য করে: তুলসি চা শ্বাসকষ্টের সমস্যা দূর করে। হাঁপানি, ব্রঙ্কাইটিস এবং সাধারণ সর্দি-কাশি থেকেও স্বস্তি দিতে পারে। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও সাহায্য করে।

মানসিক চাপ কমায়: একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, তুলসি চা শরীরে কর্টিসল হরমোনের (স্ট্রেস হরমোন) মাত্রা কমায়, যা মানসিক চাপের পাশাপাশি উদ্বেগ কমাতেও সাহায্য করে।

রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে: রক্তে শর্করার মাত্রা কমাতেও সাহায্য করে তুলসী চা। এটি কার্বোহাইড্রেট এবং ফ্যাটের বিপাককে আরও সহজ করতে সাহায্য করে।

দাঁত ও মৌখিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখে: তুলসী পাতায় অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে। নিয়মিত তুলসি চা পান করলে মুখের ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া এবং জীবাণু দূর হয়। তুলসী চা মাউথ ফ্রেশনার হিসেবেও কাজ করে এবং নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ কমাতেও সাহায্য করে।

তুলসী চা যেভাবে বানাবেন

তুলসী চা তৈরি করা বেশ সহজ। আপনাকে যা করতে হবে তা হলো- একটি প্যানে এক কাপ পানি নিয়ে তাতে ২-৩টি তুলসী পাতা দিয়ে ফুটিয়ে নিন। প্রায় ৩ মিনিট পর একটি কাপে চা ছেঁকে নিন। আপনি চাইলে এভাবেও তুলসী চা পান করতে পারেন কিংবা স্বাদে ভিন্নতা আনতে ও আরো বেশি স্বাস্থ্য উপকারিতা পেতে এক চা-চামচ মধু এবং আধা চা-চামচ লেবুর রস যোগ করতে পারেন। এমনকি, চা তৈরি করার সময় এলাচ এবং আদা যোগ করতে পারেন।

তুলসী চা সবার জন্য উপকারী নয়

ওয়েবএমডির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তুলসী চা সবার জন্য উপকারী নয়। কারো কারো ক্ষেত্রে এই চায়ে স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হতে পারে। যেমন-

* অন্তঃসত্ত্বা বা বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় তুলসী চা পান করলে স্বাস্থ্য ঝুঁকি হতে পারে কিনা তা পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সম্ভাব্য যেকোনো নেতিবাচক প্রভাব এড়াতে, আপনি যদি গর্ভবতী হোন বা আপনার সন্তানকে স্তন্যপান করান তাহলে তুলসী চা পান করবেন না।

* কিছু বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রজনন ক্ষমতায় প্রভাব ফেলতে পারে তুলসী। তাই আপনি এবং আপনার সঙ্গী যদি সন্তান নেওয়ার চেষ্টা করেন, তাহলে তুলসী চা এড়িয়ে চলাই ভালো। শুক্রাণুর সংখ্যা ও গতিশীলতার ওপর এই ভেষজটির প্রভাব নিয়ে বিজ্ঞানীরা এখানো পুরোপুরি নিশ্চিত হতে পারেননি।

* রক্ত পাতলা রাখার ওষুধ খেলেও সাবধান। কারণ তুলসীও রক্ত পাতলা করে। দু’টি একসঙ্গে খেলে রক্ত অতিরিক্ত পাতলা হয়ে যেতে পারে।

* এই ভেষজ যেহেতু  শরীরের রক্ত জমাট বাঁধার ক্ষমতাকে ধীর করে দিতে পারে, তাই অস্ত্রোপচারের আগে তুলসী চা পান করা এড়িয়ে চলাই ভালো।



ডেল্টা টাইমস্/সিআর/এমই

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো. আমিনুর রহমান
প্রকাশক কর্তৃক ৩৭/২ জামান টাওয়ার (লেভেল ১৪), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত
এবং বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো. আমিনুর রহমান
প্রকাশক কর্তৃক ৩৭/২ জামান টাওয়ার (লেভেল ১৪), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত
এবং বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]