মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ ৩ মাঘ ১৪২৮

‘তদন্তে সহযোগিতা না করলে অতিরিক্ত দায়ে অভিযুক্ত হবেন রাজারবাগ পীর’
ডেল্টা টাইমস ডেস্ক:
প্রকাশ: বুধবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২১, ৭:৪৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

রাজারবাগ দরবার শরিফের সম্পদ অনুসন্ধানে দুদকের গঠিত তদন্ত দলকে অসহযোগিতা করার কোনো সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন দুদক সচিব ড. মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার। তিনি বলেছেন, দুদককে তদন্তে সহযোগিতা না করলে অতিরিক্ত দায়ে অভিযুক্ত হবেন পীর দিল্লুর রহমান।

বুধবার দুপুরে নিজে কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।

রাজারবাগের পীর দিল্লুর রহমানের আস্তানা সাইয়্যাদুল আইয়্যাদ শরীফে গেলেও রাজারবাগ পীর দিল্লুর রহমান দুদক টিমের সঙ্গে দেখা করেনি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে দুদক সচিব বলেন, আপনারা জানেন ২৬ (২) ধারা ২৭ (১) ধারা দুদককে অসহযোগিতার করার কোনো সুযোগ নেই। সেটা কেউ করতে পারে না। তাকে তদন্ত টিমের কাছে তার বাড়িতে দেখা করতে বলা হয়েছিল, সেখানে তার দেখা পায় নাই। যারা দুদককে সহযোগিতা করে নাই তারা দুদককে অসহযোগিতার অতিরিক্ত দায়ে অভিযুক্ত হবে।’

‘তদন্তে সহযোগিতা না করলে অতিরিক্ত দায়ে অভিযুক্ত হবেন রাজারবাগ পীর’

‘তদন্তে সহযোগিতা না করলে অতিরিক্ত দায়ে অভিযুক্ত হবেন রাজারবাগ পীর’

রাজারবাগের পীরের অবৈধ সম্পদের বিষয়ে হাইকোর্টের নির্দেশনার বিষয়ে আনোয়ার হোসেন বলেন, আমরা তদন্ত ও অনুসন্ধানের জন্য তিন সদস্যের একটি টিম করেছি জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে। সেই টিমে একজন সহকারী পরিচালক এবং একজন উপসহকারী পরিচালক আছেন। এই তিন সদস্যেও টিম ইতোমধ্যে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছে।

সম্পদের তদন্তের বিষয়ে দুদক সচিব বলেন, সারাদেশের ৬৪টি সাব রেজিস্ট্রি অফিস ও তফসিলভুক্ত ৫৬টি ব্যাংক ও বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন করপোরশেনের চেয়ারম্যানের কাছে তার সম্পদের খোঁজে চিঠি দিয়েছে দুদক।

বনশিল্পে চিঠির দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে দুদক সচিব বলেন, এসব জায়গা চিঠি দেওয়া হয়েছে কারণ কোথায় কোথায় জমি দখল হয়েছে, তার নামে কোনো অবৈধ সম্পদ আছে কিনা? এই তথ্য সংগ্রহের কার্যক্রম চলমান আছে। আমরা আশা করি হাইকোর্টের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে পারবো। যদি না পারা যায়, তবে হাইকোর্ট থেকে সময় চেয়ে নেওয়া হবে।

জেলা রেজিস্ট্রি অফিসে চিঠি দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে আনোয়ার হোসেন বলেন, জেলা সাব রেজিস্ট্রি অফিসে চিঠি দেওয়া হয়েছে কারণ তার অনুকূলে কি পরিমাণ জমি রেজিস্ট্রি হয়েছে সেটি জানার জন্য। আর বনবিভাগে চিঠি দেওয়া হয়েছে, কারণ আমরা শুনতে পেরেছি তিনি রাবার বাগান দখল করেছেন। আদৌ এটা হয়েছে কিনা বনশিল্প উন্নয়ন করপোরেশন সেটা বলতে পারবে।

অভিযুক্ত পীরকে দুদকে সশরীরে আসার জন্য তলব করেছেন কি না জানতে চাইলে দুদক সচিব বলেন, আমাদের টিম রাজারবাগ পরিদর্শন করেছে। আর সামনে যদি প্রয়োজন হয় তাদেরকে ডাকব। তদন্তের যেকোনো পর্যায়ে প্রয়োজন মনে করলে তাদেরকে ডাকতে পারে।

সাধারণত দুদকে কাউকে তলব করা হলেও রাজারবাগ পীরের আস্তানায় দুদক টিমের পরিদর্শনের কারণ বলতে গিয়ে দুদক সচিব বলেন, ভেন্যু পরিদর্শন করতে হয়। ভেন্যু পরিদর্শন অনুসন্ধান বা তদন্তের একটি অংশ। সেখানে যেতে হবে। সেখানে কি হয়েছে সেই হিসেবে যেতে হবে। তার বিষয়ে দুদকের তদন্ত চলমান রয়েছে।


ডেল্টা টাইমস্/সিআর/জেড এইচ

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো: আমিনুর রহমান
প্রধান কার্যালয়: মহাখালী ডিওএইচএস, রোড নং-৩১, বাড়ী নং- ৪৫৫, প্রকাশক কর্তৃক বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস থেকে মুদ্রিত
২১৯ ফকিরাপুল (১ম লেন নীচ তলা), মতিঝিল থেকে প্রকাশিত।  বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২ জামান টাওয়ার (১৫ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]