মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ১৭ মাঘ ১৪২৯

দিনাজপুর পৌর ভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন
ডেল্টা টাইমস্ ডেস্ক:
প্রকাশ: বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২, ৬:৫৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুর পৌর ভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

দিনাজপুর পৌর ভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

দিনাজপুর পৌরসভার প্রধান কার্যালয়ে বিদ্যৎ বিল ১৯ কোটি টাকা বকেয়া থাকায় বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই (নেসকো)।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) থেকে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় চলছে দিনাজপুর পৌরসভার প্রধান কার্যালয়। এতে করে সেবা নিতে এসে ভোগান্তিতে পড়েছেন পৌরবাসীরা।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) বিক্রয় ও বিতরণকারী প্রতিষ্ঠান নেসকো দিনাজপুর-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী একেএম শাহাদৎ হোসেন বলেন, গতকাল থেকে পৌরসভার সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। বিল পরিশোধ করতে একাধিকবার নোটিশও দিয়েছে নেসকো দিনাজপুর-১ ও দিনাজপুর-২। এরপরও পৌরসভা কর্তৃপক্ষ বকেয়া বিল পরিশোধ করেনি। এজন্য পৌরসভা কার্যালয়ের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়।

দিনাজপুর পৌরসভার বর্তমান মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম নির্বাচিত হওয়ার আগে বিদ্যুৎ বিল বকেয়া ছিল প্রায় পৌনে পাঁচ কোটি টাকা। এর পরে টানা তিন মেয়াদে ক্ষমতায় থেকে ঠিকমতো পৌরসভার বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ না করায় এতে বিদ্যুৎ বিল বকেয়া দাঁড়ায় ১৯ কোটি টাকা।

পৌরসভার সেবা নিতে আসা নাসিমা বেগম বলেন, অনকে সময় ধরে অপেক্ষা করেও ছেলের জম্ম নিবন্ধনের কার্ড নিতে না পেরে ফিরে যেতে হচ্ছে। কারেন্ট নাই, লাইন কাটে দিছে তাই নাকি কম্পিউটার বন্ধ। আমাদের ভোগান্তি বাড়ছে।

পৌরসভার সেবা নিতে আসা রবিউল ইসলাম বলেন, জরুরি ভিত্তিতে আমার ছেলের জম্ম নিবন্ধন কার্ডের প্রয়োজন। সকাল থেকে এসে বেশ কয়েকবার ঘুরে গেছি। সবাই বলেন বিদ্যুৎ আসলেই সেবা দেওয়া হবে কিন্তু বিদ্যুৎ আসার কোনো আলামতি দেখতে পাচ্ছি না। শুনতেছি পৌরসভার লাইন কাটে দিছে।

দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম মুঠোফোনে বলেন, কয়েক কোটি টাকা বিদ্যুতের বিল বাকি থাকলেও দিনাজপুর পৌরসভা বিদ্যুৎ বিভাগ নেসকো-২ এর কাছে আমরা প্রায় একশত কোটি টাকা পাওনা রয়েছে। আমরা একাধিক বার তাদেরকে আমাদের পৌরসভার বিদ্যুৎ লাইনের খুঁটির ভাড়া প্রদানের জন্য নির্দেশনা বা চিঠি চালাচালি করলেও তারা সাড়া দিচ্ছে না। বিষয়টি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিবও তাদের বরাবর কয়েকটি চিঠি প্রদান করেছে। তারপরও তারা আমাদের টাকা পরিশোধ না করায় আমরাও বিদ্যুতের বিল পরিশোধ করতে পারিনি ।

তিনি আরও বলেন, দিনাজপুর পৌরসভা কোভিড -১৯ টিকাসহ বিভিন্ন টিকা রয়েছে। জেনারেটরের মাধ্যমে বিদ্যুৎ লাইন সচল রাখার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে যাতে করে ভ্যাকসিনসহ সাময়িক কাজগুলো চালিয়ে যাওয়া যায় ।




ডেল্টা টাইমস্/সিআর/এমই

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো. আমিনুর রহমান
প্রকাশক কর্তৃক ৩৭/২ জামান টাওয়ার (লেভেল ১৪), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত
এবং বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো. আমিনুর রহমান
প্রকাশক কর্তৃক ৩৭/২ জামান টাওয়ার (লেভেল ১৪), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত
এবং বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]