মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬

বিভিন্ন ধরণের বীজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ডেল্টাটাইমস্, আপডেট : ১০ এপ্রিল ২০১৯

/ কৃষি
-ফাইল ছবি

ফসল চাষের জন্য আমরা বিভিন্ন নাম ও গুনাগুন সম্বলিত বীজ ব্যবহার করে থাকি। ভাল ফলন পেতে হলে এ ধরণের বীজ সম্পর্কে আমাদের ধারণা থাকা দরকার।

 

মৌল বা প্রজনন বীজ ( Breeder seed )- উদ্ভিদ প্রজননের নিয়ম কানুন পালন করে প্রজননকারী বিজ্ঞানী দীর্ঘ দিনের পরীক্ষা নিরীক্ষার পর যখন কোন একটি শস্যের জাতকে খুব ভাল মনে করেন তখন সে শস্যের বীজকে প্রজনন বীজ বলা হয়। বীজ উদ্ভাবন বা অবমুক্তায়নকারী প্রতিষ্ঠান সাধারণত  সীমিত  পরিমানে এ ধরণের বীজ উৎপাদন করে থাকে। সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞানীর তত্বাবধানে উক্ত ফসলের প্রকৃত গুনাগুন বজায় রেখে এ বীজ উৎপাদন করা হয় এবং ভিত্তি বীজ উৎপাদনের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানকে মৌলবীজ প্রদান করা হয়। এ ধরণের বীজ সাধারন বাজারে সরবরাহ করা হয় না।

 

ভিত্তি বীজ ( Foundation seed  ) -  মৌল বীজ বা প্রজনন বীজ হতে উৎপন্ন বীজকে ভিত্তি বীজ বলা হয়। এ ধরনের বীজ উৎপাদনের সময়ও উদ্ভিদ প্রজননের সকল নিয়ম ও সতর্কতা পালন করা হয়। ফলে এ বীজের আদিগুন ও বিশুদ্ধতা বজায় থাকে। ভিত্তি বীজ    নিয়ন্ত্রিত ভাবে উৎপাদন করা হয় এবং সাধারণত বাজারে বা কৃষকদের কাছে সরাসরি বিক্রয় করা হয় না। প্রত্যায়িত বীজ   উৎপাদনকারীদের নিকট এ বীজ সরবরাহ করা হয়।  
 

প্রত্যায়িত বীজ ( Certified seed  ) -  ভিত্তি বীজকে ক্রমান্বয়ে খুব বেশী পরিমানে বৃদ্ধি করলে যে বীজ পাওয়া যায় তাকে প্রত্যায়িত বীজ বলা হয়। প্রত্যায়িত বীজ মানেই সার্টিফিকেট প্রাপ্ত বীজ। বীজের মান পরীক্ষা করে সরকারীভাবে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান  এ সার্টিফিকেট দিয়ে থাকে। প্রত্যায়িত বীজ উচ্চ  মানসম্পন্ন বীজ হিসেবে পরিচিত অর্থাৎ বীজের গজানোর ক্ষমতা, বিশুদ্ধতা এ সব গুনাগুন পরীক্ষিত এবং নির্দিষ্ট মানসম্পন্ন।
 

মানঘোষিত বীজ (Truthfully labeled seed ) - বাংলাদেশের বীজ বিধিতে উপরোক্ত বীজ সমূহ (মৌল, ভিত্তি, প্রত্যায়িত) ছাড়াও এ মানঘোষিত বীজ বিপননের অনুমোদন দেয়া আছে। মানঘোষিত বীজ বিক্রয় করতে চাইলে প্যাকেটের গায়ে বীজের মানের উল্লেখ  থাকতে হবে। ঘোষিত মান অপেক্ষা প্যাকেটের বীজের মান খারাপ হলে শাস্তি- প্রদানের বিধান রয়েছে।  
 

উচ্চ ফলনশীল বীজ (High yielding seed) - উচ্চফলনশীল কথাটি সংক্ষেপে উফশী নামেও পরিচিত। এই ধরনের বীজ উচ্চ বা বেশী ফলন দেয়। তবে উফশী শব্দ দিয়ে বীজের অন্যান্য গুন যেমন- গজানোর ক্ষমতা, বিশুদ্ধতা এসব বোঝানো হয় না।
 

উন্নত বীজ (Quality seed) - স্থানীয় জাতের মধ্য থেকে বেছে ভালো গুণসম্পন্ন জাত বের করে ওই জাতের উন্নত বীজ পাওয়া যায়। উন্নত বীজ বলতে অধিক গজানোর ক্ষমতাসম্পন্ন , বিশুদ্ধ, রোগ ও পোকার আক্রমণের মাত্রা কম ইত্যাদি ভালো গুণের বীজকে বোঝায়।
 

হাইব্রিড বীজ (Hybrid seed) - একই ফসলের এক জাতের পুরুষ ও অন্য জাতের স্ত্রী ফুলের মিলনে যে সব নতুন জাত পাওয়া যায় তার মধ্যে কোন কোনটি তাদের বাবা-মা এর ভালগুনাবলী থেকেও উন্নত। এ ধরণের বীজকে হাইব্রিড বীজ বলা হয়। তবে হাইব্রিড বলতেই যে উন্নতমানের বীজ হবে তা নয়। হাইব্রিড বীজ চাষাবাদ করে অধিক ফলন পাওয়া গেলেও তা থেকে পরবর্তী মৌসুমে চাষ করার জন্য বীজ রাখা যাবে না। প্রতি বছরই নতুন হাইব্রিড বীজ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের কাছে থেকে সংগ্রহ করতে হবে।