মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬

মেদ কমাতে অতিরিক্ত খাওয়া এড়িেেয় চলুন!

নিজস্ব প্রতিবেদক, ডেল্টাটাইমস্, আপডেট : ২ নভেম্বর ২০১৯

/ লাইফস্টাইল

আপনি কি মাঝে মধ্যেই অতিরিক্ত খেয়ে ফেলেন?  প্রতিটি মানুষই প্রায়ই নিজের প্রয়োজনে অতিরিক্ত খেয়ে ফেলেন। খাবার খুব সুস্বাদু হওয়ার কারণে,  প্রিয়জনের অতিরিক্ত জোর করার কারণে অথবা নিজের খাওয়ার পরিমাণ নিজে বুঝতে না পেরে প্রায়ই বেশি খাওয়া হয়ে যায় আমাদের। এছাড়াও কম্পিউটারে কাজ করতে করতে অথবা টিভি দেখার সময় খেলেও অতিরিক্ত খাওয়া হয়ে যায়।
বেশি খেয়ে ফেললে পেটে এক ধরনের অস্বস্তি হয়। সেই সঙ্গে শরীরে অতিরিক্ত ক্যালরি জমার ফলে মেদ বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে। বেশি খেয়ে ফেললে সেই খাবার হজম করতেও বেশ কষ্ট হয়। তাই খাবার পরিমিত পরিমাণে খাওয়াই ভালো। জেনে নিন অতিরিক্ত খাওয়া এড়ানোর উপায় সম্পর্কে।

১) নিজের খাওয়ার পরিমাণ ঠিক করুন। প্রতিদিন কোন বেলা ঠিক কতটুকু খাবেন সেটার পরিমাপ নিজেই নির্ধারণ করে নিন নিজের প্রয়োজন অনুযায়ী। সকালের জলখাবারে খুব বেশি ভারী কিছু একদম খাবেন না। দুপুরে পরিমিত ভাত খাওয়া অভ্যাস করুন। আর বাকিটুকু সবজি, মাছ বা মাংস খাওয়ার পরিমাপ নির্ধারণ করে নিন। এই পরিমাণ খাবার রোজ নিয়ম করে খাওয়ার অভ্যাস করুন।

২) খুব বেশি ক্ষুধার্ত অবস্থায় কখনই খাবেন না। অতিরিক্ত খিদে লাগার আগেই হালকা কিছু খেয়ে নিন। ক্ষুধার্ত অবস্থায় খেলে সহজে খিদে মেটে না ফলে বেশি খাওয়া হয়ে যায়।

৩) খাওয়ার আগে এক গ্লাস জল খেয়ে নিন। একগ্লাস জল খেয়ে নিলে পেট অনেকটাই ভরে যাবে এবং আপনার অতিরিক্ত খাওয়ারও কোনও অবকাশ থাকবে না। ফলে পরিমিত খাওয়া হবে আপনার।

৪) ছোট প্লেটে খাওয়ার অভ্যাস করুন। বড় প্লেটে খেলে বেশি খাবার খাওয়া হয়ে যায়। ছোট প্লেটে কম খাবার নিলে কম বা পরিমিত খাওয়া হয়।

৫) খাবার তালিকায় অনেক রকমের তরকারি থাকলে স্বাভাবিক ভাবেই অনেক বেশি খাওয়া হয়ে যায়। প্রোটিনের জন্য মাছ বা মাংস এবং অন্যান্য পুষ্টি উপাদানের জন্য পাঁচমেশালি সবজি রাখুন। একই সঙ্গে মাছ, মাংস,  ডিম,  অনেক রকমের তরকারী রাখলে প্রতিটিই অল্প অল্প করে খান। তবে প্রতিটি পদের সঙ্গে ভাত খাওয়া এড়িয়ে চলবেন।

৬) ধীরে ধীরে খাওয়ার অভ্যাস করুন। যারা দ্রুত খায় তাদের বেশি খাওয়া হয়ে যায়। তাই খাবার চিবিয়ে খাওয়ার অভ্যাস করুন। এতে পরিমিত খাওয়া হবে।

৭) কম্পিউটারে কাজ করার সময় অথবা টিভি দেখার সময় খাবেন না। খাবার টেবিলে বসে খাওয়ার অভ্যাস করুন। তাহলে অতিরিক্ত খাওয়া এড়ানো যাবে।