শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

পাকিস্তানকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে নিলো শ্রীলঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ডেল্টাটাইমস্, আপডেট : ৮ অক্টোবর ২০১৯

/ খেলা
-ফাইল ছবি

দীর্ঘ দশ বছর পর শ্রীলঙ্কাকে দিয়ে ঘরের মাটিতে আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ফিরিয়েছে পাকিস্তান। সেই ওয়ানডে সিরিজে জয় দিয়ে স্মরনীয় করে রাখে সফরাজ আহমেদের দল। তবে টি-টোয়েন্টি সিরিজে পাকিস্তানকে হারিয়ে দিয়েছে সফরকারি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল।

গতকাল রাতে লাহোরে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিক পাকিস্তানকে ৩৫ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজটি ২-০তে জিতে নিয়েছে।

ভানুকা রাজাপাকসের করা ৭৭ রান ও ওয়ানিন্ডু হাসারাঙ্গার এক ওভারে ৩ উইকেট দখলের নৈপুণ্যে সফরকারীরা অনায়াসে জয়ী হয়।

শ্রীলঙ্কা আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮২ রান তুলেছিল। জবাবে পাকিস্তান ১৯তম ওভারে ১৪৭ রানে অলআউট হয়ে যায়।

বোলিংয়ে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ৩৮ রানে ৩ উইকেট তুলে পাকিস্তানের মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছেন। টেল এন্ড ধসিয়ে দেওয়া নুয়ান প্রদীপ ২৫ রানে ৪ উইকেট পেয়েছেন। রাজাপাকসে ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন।

পাকিস্তান গত ম্যাচের চেয়েও এদিন বড় ব্যবধানে হারতে পারত। যদি না ইমাদ ওয়াসিম ও আসিফ আলী বাঁধা হয়ে না দাঁড়াতেন।

১১ রানে দুই ওপেনার হারানো পাকিস্তান ৫২ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে। এর মাঝে প্রথম বলেই আউট হয়ে টি-টোয়েন্টিতে শূন্য রানে আউট হওয়ার বিশ্ব রেকর্ড ছুঁইয়ে ফেলেছেন উমর আকমল। এমন অবস্থায় দলকে ভরসা দেন ইমাদ ও আসিফ। জুটি বাঁধার সময় ১২ ওভারে ১৩১ রানের লক্ষ্য পেয়েছিলেন দুজন। ১৬তম ওভারে যখন আউট হলেন ইমাদ, লক্ষ্যটা ২৫ বলে ৫৬ রানে নেমে এসেছিল। ২৯ বলে ৪৭ রান করেছেন ইমাদ।

অন্যপ্রান্তে আসিফ খেলেছেন ওয়ানডে মেজাজে (২৭ রানে ২৯)। টেল এন্ডাররা কেউই পারেননি প্রয়োজনীয় গতিতে রান তুলতে। ফলে ১৯তম ওভারের শেষ বলে যখন আউট হয়েছে আসিফ, জয় তখনো ৩৬ রান দূরে।

এর আগে ভানুকা রাজাপাস্কার প্রথম ফিফটিতে ১৮২ রান তুলেছিল শ্রীলঙ্কা। ২৭ বছর বয়সী বাঁহাতি তিনে নেমে ৪৮ বলে ৭৭ রান তুলেছেন। চারটি চারের সঙ্গে ছয়টি ছক্কা ছিল তার ইনিংসে। শেহান জয়াসুরিয়া ২৮ বলে ৩৪ রান তুলেছেন। ১৫ বলে ২৭ রান করেছেন দাসুন শানাকা।