বুধবার ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২৫ মাঘ ১৪২৯

কর্মিদের গলা বাঁচিয়ে রাখতে বললেন কাদের
ডেল্টা টাইমস্ ডেস্ক:
প্রকাশ: সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৮:৩৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

কর্মিদের গলা বাঁচিয়ে রাখতে বললেন কাদের

কর্মিদের গলা বাঁচিয়ে রাখতে বললেন কাদের

রাজধানীর শ্যামপুরের কদমতলী থানার ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে নেতাকর্মীদের ওপর চটে তাদের ‘বেয়াদব’ আখ্যা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দিতে গিয়ে চটে যান কেন্দ্রীয় এই নেতা।

এ দিন বক্তব্যের শুরুতেই ‘বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম’ বলে বক্তব্য শুরু করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তবে তখনও নেতাকর্মীদের স্লোগান চলছিল। পরে স্লোগান বন্ধ করতে বারবার নেতাকর্মীদের আহ্বান জানান কাদের।

এ সময় ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘যদি কথা শুনতে চান, স্লোগান বন্ধ করতে হবে। আর যদি বলেন স্লোগান দেবেন, তাহলে আমি চলে যাই।’

তবে এতেও কর্ণপাত করেননি কদমতলী থানার ছয় ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা। ওই সময় মঞ্চে দাঁড়ানো নেতাদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আবারও! আবারও! আপনাদের নেতাদের কোনো কন্ট্রোল নাই!’

পরে নেতাকর্মীদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবার বলেন, ‘এই এখন রাখেন। স্লোগান পরে দেবেন। স্লোগান দেওয়ার সময় সামনে আসছে। মাঠে যেতে হবে, রাজপথে নামতে হবে। খেলা হবে। আন্দোলনে খেলা হবে। নির্বাচনে খেলা হবে, খেলা হবে তখন স্লোগান দেবেন। এখন গলা নষ্ট করবেন না। গলা বাঁচিয়ে রাখুন, কাজে লাগবে।’

এ দিন নেতাকর্মীদের স্লোগান থামাতেই প্রায় আড়াই মিনিট সময় লাগে। পরে মূল বক্তব্যে যান কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দুইবারের এই সাধারণ সম্পাদক। এরপর বক্তব্য শেষে কদমতলী থানার নেতাদেরও ‘এক হাত নেন’ ওবায়দুল কাদের।

নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারা এমন সময়ে প্রধান অতিথিকে বক্তব্য দিতে দেন, তখন আর সময় থাকে না। আমি আপনাদের বলব- সামনের দিকে আপনারা একটা তালিকা তৈরি করবেন। ৩০ জন বক্তা হলে সেখানে কে কার কথা শুনবে? মানুষ কিন্তু কিছু মানুষের বক্তৃতা শুনতে আসে। শুনতে চায়। সেই সুযোগটা থেকে তাদের বঞ্চিত করা ঠিক নয়। একে দেব, তাকে দেব, একে দেব, তাকে দেব- এই করতে করতে সময় শেষ।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নেতাদের ছবি দিতেই হবে। নেতাদের খুশি রাখতে হবে। কখন আবার কার হাতে আপনার ভাগ্য নির্ধারণ হবে, এটা চিন্তা করে নেতাদের খুশি রাখবেন। তার ছবি কত হাসিমাখা, কার ছবি কত সুন্দর, কার ছবি কত বড় দেখতে দেখতে শুধু অবাক হই। হায়রে! আওয়ামী লীগ তো কোনোদিন এই ছবি রাজনীতি করে নাই।’



ডেল্টা টাইমস্/সিআর/এমই

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো. আমিনুর রহমান
প্রকাশক কর্তৃক ৩৭/২ জামান টাওয়ার (লেভেল ১৪), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত
এবং বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো. আমিনুর রহমান
প্রকাশক কর্তৃক ৩৭/২ জামান টাওয়ার (লেভেল ১৪), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত
এবং বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]