মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২৩ মাঘ ১৪২৯

মালদ্বীপে মিয়াঞ্জ ইন্টারন্যাশনাল কলেজের অ্যাওয়ার্ড পেলেন শাইখ সিরাজ
ওমর ফারুক অনিক, মালদ্বীপ:
প্রকাশ: রোববার, ২৭ নভেম্বর, ২০২২, ১২:০১ পিএম আপডেট: ২৭.১১.২০২২ ১২:০৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

প্রবাসের মাটিতে অসংখ্য বাংলাদেশিদের কৃতি প্রজন্ম রয়েছেন, যাদের সাফল্যে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল হচ্ছে। সেই সফল প্রজন্মের কীর্তিগাথায় নতুন প্রজন্ম খুঁজে পায় এগিয়ে চলার অনুভূতি। মালদ্বীপে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করা এমনই একজন কীর্তিমান আহমেদ মোত্তাকি। যিনি মালদ্বীপের এম'আই কলেজ প্রতিষ্ঠাতা, মিয়াঞ্জ ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেড দ্বারা একাধিক প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। ইতিমধ্যেই নিজের কর্মকাণ্ড এবং পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে প্রবাসী কমিউনিটিগুলোতেও সমাজসেবী হিসেবে সুনাম অর্জন করেছেন তিনি।

শনিবার (২৬শে নভেম্বর) স্থানীয় সময় সকাল, দুপুর, বিকেল ও রাতে ৪টি অধিবেশনে গিয়াসউদ্দিন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের অডিটোরিয়াম সেন্টারে প্রতিষ্ঠাতা আহমেদ মোত্তাকির মিয়াঞ্জ ইন্টারন্যাশনাল কলেজ, (এম'আই'সি) এর ডিগ্রি-গ্র্যাজুয়েট শিক্ষার্থীদের সমাবর্তন-২০২২ অনুষ্ঠিত হয়।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সমাবর্তন -২০২২ এর অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে অনলাইনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য পেশ করেন মালদ্বীপের শিক্ষামন্ত্রী ডা. ইব্রাহিম হাসান। শেসন-৩ এ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালদ্বীপে নিযুক্ত বাংলাদেশ হাইকমিশনার রিয়ার এডমিরাল এস এম আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ থেকে আগত চ্যানেল আই এর সাংবাদিক মো. শাইখ সিরাজ, মি. মোহাম্মদ হালিম, মি. লামিয়া আব্দুল হাদীর প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন, আয়োজক সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা প্রবাসী শিক্ষা উদ্দোক্তা আহমেদ মোত্তাকি। উপস্থিত এমআই কলেজের সকল ছাত্র ছাত্রীদের ডিগ্রি সার্টিফিকেট প্রদান করা শেষে, এমআই কলেজ কর্মীদের পথ চলার অনুপ্রেরণা ও সার্বিক সহযোগিতা কারার জন্য বাংলাদেশ হাইকমিশনার এস এম আবুল কালাম আজাদ'কে বিশেষ সম্মাননা ও এম'আই ইন্টারন্যাশনাল কলেজ কৃষি ফ্যাকাল্টি হিসেবে আড্ডু শহরে স্কুল অব অ্যাগ্রিকালচারারের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম পরামর্শ ও অনন্য অবদানের জন্য সম্মাননা এওয়ার্ড প্রদান করেন চ্যানেল আই এর সাংবাদিক মো. শাইখ সিরাজকে।

প্রবাসী শিক্ষা উদ্দোক্তা আহমেদ মোত্তাকি উপস্থিত ছাত্র ছাত্রীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আজকের দিনটি তোমাদের জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিন। একই সাথে এটি আনন্দেরও দিন। আমি সৌভাগ্যবান যে, তোমাদের সাথে এই আনন্দের দিন কাটাতে পারছি। আমি নিশ্চিত যে, তোমরা একদিন জীবনে প্রতিষ্ঠিত হবে। তোমরা সমাজ, জাতি, দেশ কিংবা পৃথিবীকে কিছু দিতে শুরু করবে। তখন তোমাদের এই দিনটির কথা মনে থাকবে।

কৃষি উন্নয়নে গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব শাইখ সিরাজ মিঁয়াজ ইন্টারন্যাশনাল কলেজ থেকে সম্মানসূচক অ্যাম্বাসেডর অব এগ্রিকালচার অ্যাওয়ার্ড পেয়ে তিনি বলেন, এই সম্মান তাকে কৃষি উন্নয়নে আরো কাজ করতে উৎসাহিত করবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাইকমিশনার বলেন, এই স্বীকৃতি যা বিশেষ করে মালদ্বীপ প্রবাসীদের জন্য প্রদান করা হলো যা আমার এবং আমার দেশের জন্য একটি বড় গর্বের বিষয়। আমি এম'আই কলেজ প্রতিষ্ঠাতা আহমেদ মোত্তাকিকে ধন্যবাদ জানাই যে তিনি আমাকে এই অ্যাওয়ার্ড-এর জন্য মনোনীত করেছেন। তিনি আরও বলেন, অর্জিত শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে আত্মনির্ভরশীল ও সমৃদ্ধের বাংলাদেশ গড়তে ও অবদান রাখতে প্রবাসে থাকা শিক্ষার্থীদের আরও এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার শাহবাজপুরের মিয়াবাড়ির আহমেদ মোত্তাকি গত ত্রিশ বছর ধরে মালদ্বীপে বসবাস করে আসছেন। প্রবাস জীবনটা মালদ্বীপের সরকারি স্কুলে শিক্ষকতা দিয়ে শুরু করলেও এখন তিনি একজন বাংলাদেশি শিক্ষা উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। তার মালিকানায় মিয়াঞ্জ ইন্টারন্যাশনাল গ্রুপ মালদ্বীপে বাংলদেশি খাদ্য ও কৃষিপণ্যের বড় আমদানিকারক খ্যাতি পেয়েছে। এ ছাড়াও বিপুল সংখ্যার বাংলাদেশির কর্মসংস্থানের সুযোগও হয়েছে।

ডেল্টা টাইমস্/সিআর/একে

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
  এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ  
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো. আমিনুর রহমান
প্রকাশক কর্তৃক ৩৭/২ জামান টাওয়ার (লেভেল ১৪), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত
এবং বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত।

ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মো. আমিনুর রহমান
প্রকাশক কর্তৃক ৩৭/২ জামান টাওয়ার (লেভেল ১৪), পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত
এবং বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত।
ফোন: ০২-৪৭১২০৮৬১, ০২-৪৭১২০৮৬২, ই-মেইল : [email protected], [email protected]